Help Bangla

Blogs in Bangali

WHO-এর অনুসারে স্বাস্থ্যের সংজ্ঞা দাও। স্বাস্থ্যের দিকগুলি উল্লেখ কর।

WHO-এর অনুসারে স্বাস্থ্যের সংজ্ঞা দাও। স্বাস্থ্যের দিকগুলি উল্লেখ কর।

WHO-এর অনুসারে স্বাস্থ্যের সংজ্ঞা দাও। স্বাস্থ্যের দিকগুলি উল্লেখ কর। 

আমার নম্বর : 7432912035 

WHO-এর অনুসারে স্বাস্থ্যের সংজ্ঞা 

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা কর্তৃক আনুষ্ঠানিকভাবে সংজ্ঞায়িত করা হয়েছে, Health বা স্বাস্থ্য হচ্ছে সম্পূর্ণভাবে শারীরিক, মানসিক এবং সামাজিক সুস্থতার একটি অবস্থা, কেবল রোগ বা দূর্বলতার অনুপস্থিতি নয়।

বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা বা WHO-র স্বাস্থ্য শিক্ষার বিষয়ক কমিটির মতে স্বাস্থ্য শিক্ষার লক্ষ্য হল মানুষের মানোন্নয়ন করা তার মাধ্যামে দীর্ঘদিন বেঁচে থেকে পরিবার, সমাজ তথা দেশের সেবা করা। Somers প্রদও স্বাস্থ্য শিক্ষার সংগাটিকে পরবর্তীকালে National Conference on preventi (USA) গ্রহন করে এবং এই সংঙ্গটিকে বিশ্বেগণের মাধ্যমে JE Park: স্বাস্থ্য শিক্ষার তিনটি। Physical Education করেন, যেমন 

১. মানুষকে তথা জ্ঞাপন করা

২. মানুষকে প্রেষণা দান করা

৩. কাজ করার জন্য পথপ্রদর্শন করা

কিছু কিছু ব্যক্তি এই উদ্দেশ্য গুলিকে অন্য নামে প্রকাশ করেছেন, যেম

A. স্বাস্থ্য সম্পর্কিত জ্ঞানের বিকাশ।

B. অনুমোদনযোগ্য স্বাস্থ্যগত মনোভাবের বিকাশ।

C. অনুমোদনযোগ্য স্বাস্থ্য অভ্যাসের বিকাশ।

১. মানুষকে তথ্য জ্ঞাপন করা বা স্বাস্থ্য সম্পর্কিত জ্ঞানের বিকাশ (Informing people or development of health knowledge) : স্বাস্থ্য শিক্ষার প্রথম উদ্দেশ্য হল মানুষকে তথ্য সপন করা বা গবেষণা ও আবিষ্কারের মাধ্যমে প্রপ্ত ব্যবস্থা বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে তথ্যগুলিকে মানুষের সামনে উপস্থাপন ও ব্যখ্যা করার মাধ্যমে মানুষকে জ্ঞানের বিকাশ ঘটানো। এই তথগুলি পাওয়ার মাধ্যমে ব্যক্তিবর্গ তাদের স্বাস্থ্য বিষয়ক সমস্যাগুলি চিহ্নিত করে তার যথাযথ নিরাময়ের ব্যবস্থা করতে পারে। এগুলি স্বাস্থ্য ও স্বাস্থ্যবিজ্ঞান বিষয়ক অজ্ঞানতা, কুসংস্কার, অন্ধবিশ্বাস এবং ভ্রান্তধারণা দূর করতে সাহায্য করে।

২. মানুষকে প্রেষণা দান করা বা অনুমোদনযোগ্য স্বাস্থগত্য মনোভাবের বিকাশ (Motivating people or

Development of desirable health practices) : স্বাস্থ্য সম্পর্কে মানুষকে তথ্য প্রদান করাই যথেষ্ট নয়। তাদের এমনভাবে প্রেষণা দান করতে হবে যাতে তারা দৈনন্দিন জীবনে এই জ্ঞান ব্যবহার করতে পারে এবং এর মাধ্যমে তাদের আচরণগত, মনোভাবগত অভ্যাসগত পরিবর্তনের পাশাপাশি জীবনশৈলীর পরিবর্তন সংঘটিত হয়। ব্যক্তি যখন এই স্বাস্থ্যময় মনোভার অর্জন করে তেমন তার মাধ্যমে এই মনোভাব বা জ্ঞান পরিবার, গোষ্ঠী, সমাজ তথা দেশে সর্বত্র ছড়িয়ে পড়ে। ৩. কাজ করার জন্য পথপ্রদর্শন করা বা অনুমোদনযোগ্য স্বাস্থ্য অভ্যানের বিকাশ ( Gulding Into Action /

Development of desirable health practices) : যতক্ষন না মানুষ স্বাস্থ্যগত সুঅভাস অর্জন করে এবং তারা স্বাস্থ্যপূর্ণ জীবনশৈলী গ্রহন করে ও মেনে চলে, ততক্ষন জ্ঞান অর্জন অর্থহীন বা নিষ্ফল হয়ে থাকে। স্বাস্থ্যগত অভাগ মানুষের স্বস্থ্যগত অবস্থা নির্দশ করে। ক্ষতিকর অভ্যাসের সঙ্গে খাপ খাইয়ে নিলে দূর্বল ও ঘাটতি পূর্ণ স্বাস্থ্যের প্রকাশ ঘটে, অপরদিকে সুঅভ্যাসগুলি সুউত্তম ও ধনাত্মক স্বাস্থ্য নির্দেশ করে। স্বাস্থ্য শিক্ষার গীতীগুলি প্রতিনিয়ত নানাভাবে আমাদের পথ প্রদর্শন করে এবং এর ফলেই অনুমোদনযোগ্য অভ্যাসের বিকাশ ঘটে।

Updated: July 28, 2022 — 6:05 am

1 Comment

Add a Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Help Bangla © 2023 Frontier Theme